fbpx

মঙ্গলবার সকাল পর্যন্তও খোঁজ মিলল না গঙ্গায় তলিয়ে যাওয়া আটটি ট্রাকের, নিখোঁজ বেশ কয়েকজন যাত্রীও

নিজস্ব সংবাদদাতা , মানিকচক , ২৪ নভেম্বর : মঙ্গলবার সকাল পর্যন্তও খোঁজ মিলল না আটটি ট্রাকের। সোমবার মালদার মানিকচকের ফেরিঘাটে ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা ঘটে যাবার বেশ কয়েক ঘণ্টা পরেও খোঁজ নেই জলে তলিয়ে যাওয়া বেশ কয়েকজন যাত্রীর। উল্লেখ্য, সোমবার রাত সাড়ে সাতটা নাগাদ এই লঞ্চ ডুবির ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন যাত্রী নিখোঁজ হয়েছেন। পাশাপাশি ট্রলারে থাকা আটটি ট্রাকও ডুবে গিয়েছে নদীতে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মানিকচক থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। পাশাপাশি ঘটনার খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে আসেন জেলা প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকেরা। খবর পেয়ে এলাকাবাসীদের ভিড় উপচে পড়ে নদীঘাটে।

মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত উদ্ধারকাজ জারি রেখেছে জেলা প্রশাসন। উদ্ধারকার্যে নেমেছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। পাশাপাশি জলে তলিয়ে যাওয়া ট্রাক সহ লঞ্চের সন্ধানে নদীঘাটে রাখা হয়েছে ক্রেন। মঙ্গলবার সকালে ডুবুরি তল্লাশিতে একটি ট্রাকের জলের তলায় সন্ধান মিলেছে, সেটিকে নদীগর্ভ থেকে তোলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, ঝাড়খণ্ডের রাজমহল থেকে মালদার মানিকচকে আসছিল এই লঞ্চটি। লঞ্চে কয়েকজন যাত্রী ছাড়াও বেশ কয়েকটি পণ্যবাহী ট্রাকও ছিল। মালদার মানিকচকের পৌঁছনোর সাথে সাথেই সেটি নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পরে। সেসময় লঞ্চটিকে নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হলেও শেষ রক্ষা হয়নি। আচমকাই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গঙ্গায় তলিয়ে যায় লঞ্চে থাকা একের পর এক পণ্যবাহী ট্রাক। এমন ঘটনায় হইচই শুনে আশেপাশে থাকা মানুষেরা ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে। এঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে মানিকচক এবং মালদা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মানিকচক থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। মানিকচকে গঙ্গার ঘাটে আসেন জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র, জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া সহ জেলা প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকরা। পরবর্তীতে ঘটনাস্থলে আসেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী, মানিকচকের কংগ্রেস বিধায়ক মোত্তাকিন আলম, মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড় চন্দ্র মন্ডল সহ অন্যান্যরা। তবে রাতের কারণে দৃশ্যমানতা কম থাকায় উদ্ধারকাজে যেন কোন অসুবিধা না হয় সে কারণে ঘাট চত্বরে বসানো হয়েছিলো আলো। জলে তলিয়ে যাওয়া নিখোঁজদের সন্ধানে নামানো হয়েছিল ডুবুরি। পাশাপাশি নদীতে নামানো হয়েছিল স্পিড বোর্ড, মোতায়েন করা হয়েছে দমকল বাহিনীকেও।

জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র জানিয়েছেন ঘটনায় নিখোঁজ অধিকাংশেরই খোঁজ মিলেছে। আরো কেউ নিখোঁজ রয়েছেন কিনা তা নিশ্চিত হতে তল্লাশি অভিযান জারি রাখা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় মানিকচকের গঙ্গা নদীতে লঞ্চের দুর্ঘটনা হয়।ঝাড়খণ্ডের রাজমহল থেকে পণ্য ট্রাক বোঝাই লঞ্চ মালদহের মানিকচক আসছিল। মালদহের মানিকচক ঘাটে পৌঁছানোর আগেই ভেসেলের রেলিং ভেঙে যায়। সঙ্গে সঙ্গেই একদিকে কাত হয়ে যায়। একই সঙ্গে আটটি ট্রাক গঙ্গায় তলিয়ে যায় বেশিরভাগ ট্রাকেই পাথরবোঝাই ছিল। মোঃ আনারুল হক নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা জানান, সকাল পর্যন্ত কিছু পাওয়া যায়নি। ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ায় নিমেষেই জলের তলায় তলিয়ে যায় আটটি ট্রাকসহ লঞ্চটি। রাত থেকে শুরু হয় তল্লাশি। এখনো আটটি ট্রাকই জলের তলায় রয়েছে। বেশ কয়েকজন ট্রাক ড্রাইভার এবং সহকারি এখনো নিখোঁজ। নিখোঁজদের কেউ পার্শ্ববর্তী রাজ্য ঝাড়খন্ড এবং কেউ এই পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা।

মোশারফ শেখ নামে এক ট্রাক মালিক জানিয়েছেন, সন্ধ্যায় লঞ্চ ডুবির ঘটনা শুনে আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসি। আমার নিজের দুটি ট্রাক ছিল লঞ্চে। সকাল পর্যন্ত কারও সন্ধান পাওয়া যায়নি। রাত্রে ঘটনাস্থলে থেকে যাদের উদ্ধার করা হয়েছে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে চিকিৎসার জন্য। আমার গাড়ির তিনজন ছিলেন তারাও বর্তমানে নিখোঁজ। এখনো পর্যন্ত উদ্ধারকাজ জারি রেখেছে প্রশাসন। মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড় চন্দ্র মন্ডল জানিয়েছেন, আটটি ট্রাক নিখোঁজ। ডুবুরি তল্লাশিতে একটি ট্রাকের জলের তলায় সন্ধান মিলেছে। ক্রেন দিয়ে সেটিকে তোলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কিন্তু পণ্যবাহী হওয়ার কারণে সেটিকে তুলতে কিছু সমস্যা হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের সকল আধিকারিকেরা সব সময় ঘটনাস্থলে থেকে পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে।

News Desk

Next Post

ধেয়ে আসছে প্রবল ঘূর্ণিঝড় নিভার, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

Tue Nov 24 , 2020
Share on Facebook Tweet it Share on Reddit Pin it Share it Email নিউজ ডেস্ক , ২৪ নভেম্বর : ২০২০ সাল মানেই এক ভয়ানক বিভীষিকা। একের পর এক বিপদ৷ আর এই অতিমারির সংকটের মাঝেই তামিলনাড়ু ও পুদুচেরিতে আছড়ে পড়তে চলেছে ভয়াভহ ঘূর্ণিঝড় নিভার। এই ভয়াবহ দুর্যোগে তামিলনাড়ু (Tamilnadu) ও পুদুচেরি […]

সংবাদ শিরোনাম

RCTV Sangbad

24/7 TV Channel

RCTV Sangbad is a regional Bengali language television channel owned by Raiganj Cable TV Private, Limited. It was launched on August 20, 2003, as a privatecompany. The channel runs a daily live broadcast from Raiganj, West Bengal. The company also provides a set-top box.

error: Content is protected !!