fbpx

খুনের ঘটনার তদন্তে সাফল্য পেল পুলিশ

মালদা, ৪ ডিসেম্বর :মালদার পুখুরিয়ায় যুবতীকে খুনের ঘটনার তদন্তে সাফল্য পেল পুলিশ। খুনের ঘটনার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুখুরিয়া থানার পুলিশ। শনিবার ধৃতকে সাতদিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ৩০ শে নভেম্বর সকালে মালদা জেলার পুখুরিয়া থানার খৈলসনা এলাকার একটি আমবাগান থেকে এক যুবতীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। প্রথমে যুবতীর নাম পরিচয় জানা না গেলেও পরবর্তীতে পুলিশকর্মীরা তার নাম পরিচয় জানতে পারেন। জানা যায়, মৃত ওই যুবতীর নাম নাসিমা খাতুন। সে পুখুরিয়া থানার পরানপুর এলাকার বাসিন্দা। এরপর সেদিন রাতে পরিবারের পক্ষ থেকে পুখুরিয়া থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ তদন্তে নেমে খুনের ঘটনার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ওই যুবকের নাম তারিকুল আলম। রানীনগর এলাকার বাসিন্দা ওই যুবক পেশায় পরিযায়ী শ্রমিক। তিনমাস আগে কেরালায় শ্রমিকের কাজ করাকালীন সময়ে নাসিমা খাতুনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ওই যুবকের। কিছুদিন আগে তারিকুল বাড়ি আসায় তাদের সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হয়। এরপরে নাসিমা তারিকুলকে বিয়ে করার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। পরবর্তীতে তারিকুল জানায় সে বিবাহিত। এসব জানার পরেও নাসিমা তাকে বিয়ে করতে রাজি হলেও তারিকুল বিয়ে করতে অস্বীকার করে।পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে ওঠায় একটি ফাঁকা আমবাগানে নিয়ে গিয়ে ওই যুবক ধারালো অস্ত্র দিয়ে নাসিমাকে খুন করে বলে অভিযোগ। শনিবার ধৃতকে ৭ দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ পুলিশ।

নিজস্ব সংবাদদাতা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Next Post

বাড়ি গিয়ে শংসাপত্র প্রদান পৌর প্রশাসকের

রবি ডিসে ৫ , ২০২১
ডালখোলা, ৫ ডিসেম্বর : বাড়ি বাড়ি গিয়ে জাতি, জন্ম ও মৃত্যু শংসাপত্র প্রদানের উদ্যোগী হলো ডালখোলা পৌরসভা। রবিবার ডালখোলা পৌরসভার পৌর প্রশাসক তনয় দে বিভিন্ন এলাকায় পৌঁছে ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের হাতে এই শংসাপত্রগুলি তুলে দেন। পাশাপাশি এলাকাবাসীদের বিভিন্ন অভাব-অভিযোগের কথাও শোনেন তিনি। আগামীতেও একইভাবে জনসাধারণের বাড়িতে পৌঁছে এই পরিষেবা প্রদানের কাজ করা […]

আপনার পছন্দের সংবাদ

error: Content is protected !!