মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি এলাকাবাসীদের মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি এলাকাবাসীদের
মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি এলাকাবাসীদের

মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি এলাকাবাসীদের

ছবি সংগৃহীত

মানিকচক , ২৬ সেপ্টেম্বর : এক মূক ও বধির যুবতীকে ধর্ষণের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো মালদা জেলার মানিকচক থানার নুরপুর এলাকায়। শনিবার রাতে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।

রাতেই গুরুতর জখম অবস্থায় ওই যুবতীকে মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। পরিবারের সদস্যদের লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এই ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে মানিকচক থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, প্রতিদিনের মত শনিবারও জমিতে চাষাবাদের জন্য গিয়েছিলো ওই যুবতী। কিন্তু সন্ধ্যে হয়ে গেলেও বাড়ি ফিরে না আসায় তার সন্ধানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন পরিবারের সদস্যরা। এরপর রাত্রি ৮ টা নাগাদ অর্ধনগ্ন অবস্থায় বাড়ি ফিরে আসে ওই যুবতী। পরিবারের সদস্যদের সমস্ত ঘটনা খুলে জানায় সে। এরপর মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম মজিফুল শেখ। সে মানিকচকের নুরপুর গ্রামের বাসিন্দা। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে ওই যুবতীকে ধর্ষণের পর তাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। এমনকি প্রমাণ লোপাটের জন্য তাকে খুন করার চেষ্টার অভিযোগ ওঠে। কিন্তু ঘটনার সময় যুবতী অজ্ঞান হয়ে গেলে অভিযুক্ত মনে করে যে নির্যাতিতার মৃত্যু হয়েছে। সেই কারণে তাঁকে এলাকাতেই ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ওই যুবক। শনিবার রাতেই ওই যুবকের নামে মনিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতার পরিবার। অভিযোগের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই মজিফুল শেখ নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। রবিবার ধৃতকে মালদা জেলা আদালতে পেশ করেছে মানিকচক থানার পুলিশ।


Comments are closed.

২০২০ কপিরাইট সংরক্ষিত আরসি টিভি সংবাদ
error: Content is protected !!